| |

Ad

/ অন্যরকম

আবুধাবি থেকে টাকা’ইফতার’গনমানুষের মাঝে শিবচরে

May 19, 2020

আবুধাবি থেকে টাকায় গনমানুষের মাঝে ইফতার শিবচরে মুহাম্মাদ মহাসিন/ মানবতায়,মানবিকতায় গনমানুষের সেবার জন্য ইফতার আয়োজন করেছেন এবং বিতরণ করনে মহতী আয়োজনে সৌদি আরব, দুবাই-আবুধাবি থেকে টাকা দিয়ে ও পরামর্শে মানবিক চেতনায় সকল ধরনের মানুষের পাশে থাকার জন্য এ মহতী আয়োজন করেন ( সেবা কল্যান সোসাইটি ) নামক একটি সংগঠন। গ্রামের হাট ও বাজারে সবার জন্যই ছিলো ইফতার করার সুজুগটি প্রায় ৩০০ শতাধিক লোকের মাঝে প্রথম থাপে এ উদ্দ্যোগে ছিলো ( সেবা কল্যান সোসাইটি ) মাদারীপুর জেলার শিবচরের বেইলীব্রিজ এবং পুরাতন ফেরিঘাট এলাকায় সকল ধরনের মানুষের মাঝে ইফতার আয়োজন ছিল। আগামীতে মাদারীপুরের শিবচরের সকল ধরনের মানুষের কল্যানে মানবিক সেবার পাশে থাকবে ( সেবা কল্যান সোসাইটি) সংগঠনের দায়ীত্বশীলরা। জানান মোঃ ফরহাদ।...

গাইবান্ধায় বিরল প্রজাতির “তক্ষক” উদ্ধার,

February 18, 2019

গাইবান্ধায় বিরল প্রজাতির একটি “তক্ষক” প্রাণি উদ্ধার করা হয়েছে। আজ ভোর ৬টার দিকে গাইবান্ধা-পলাশবাড়ী আঞ্চলিক মহাসড়কের তুলশিঘাট এলাকায় চট্টগ্রাম থেকে গাইবান্ধাগামী একটি যাত্রিবাহী বাসে অভিযান চালিয়ে তক্ষকটি উদ্ধার করে পুলিশ। এই ঘটনায় চারজনকে আটক করা হয়েছে। পুলিশ জানায়, সুন্দরগঞ্জ উপজেলার শান্তিরাম গ্রামের মৃত নুরুল হকের ছেলে আব্দুর রশিদ(৪৮) ও একই গ্রামের শমেস উদ্দীনের ছেলে সেকেন্দার আলী(৫২) চট্টগ্রাম থেকে গাইবান্ধা আসছিল। তাদের সাথে ছিল খাগরাছড়ি জেলার কালাপানি গ্রামের মৃত মোসলেম উদ্দীনের ছেলে পলাশ মিয়া(৪৫) ও চট্টগ্রামের চন্দনাইশ উপজেলার সৈদাবাস গ্রামের মৃত নুরুল ইসলামের ছেলে সাইফুল ইসলাম(৩১)। আজ সোমবার ভোর ৬টার দিকে পুলিশ ওই বাসে তল্যাশির সময় তাদের কাছে থাকা চটের ব্যাগ থেকে একটি বিরল প্রজাতির প্রাণি উদ্ধার করা হয়। পরে প্রাণিটিসহ ওই চার ব্যক্তিকে...

প্রাক্তন প্রেমিক-প্রেমিকার নামে তেলাপোকা

February 12, 2019

নিউজ ডেস্ক: কয়েকদিন পরেই বিশ্ব ভালোবাসা দিবস। তরুণ-তরুণীদের কাছে বিশেষ এই দিনটি পালনের জন্য বিশ্বজুড়ে চলছে বিভিন্ন আয়োজন। তবে ব্রিটিশ এক কনজারভেশন সেন্টার দিবসটি ঘিরে নিয়েছে এক ভিন্ন উদ্যোগ। দক্ষিণ-পূর্ব লন্ডনের হ্যামসলে কনজারভেশন সেন্টার প্রেমিক-প্রেমিকাদের আসছে ভালোবাসা দিবসে সাবেক প্রেমিক বা প্রেমিকার নামে একটি তেলাপোকার নামকরণের সুযোগ দিয়েছে। তবে প্রাক্তন প্রেমিক বা প্রেমিকাদের প্রতি কোনো রাগ বা ক্ষোভ থেকে এ নামকরণ নয় বরং ভালোবাসা দিবসে আবারো তাদের মনে করার জন্য এই উদ্যোগ বলে জানিয়েছে কর্তৃপক্ষ। ঘোষণাটি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে বেশ সাড়া ফেলেছে। অনেকেই তাদের আগ্রহ প্রকাশ করেছে। প্রতিটি নামকরণের জন্য দিতে হবে মাত্র দেড় পাউন্ড বা দুই মার্কিন ডলার। প্রেমিক বা প্রেমিকারা তাদের প্রাক্তনদের যে নাম দিবে তা একটি বোর্ডে লিখে একটি তেলাপোকার...

মনের আলোয় বই পড়েন তারা

February 06, 2019

ডেস্ক রিপোর্ট : চোখের আলো দিয়ে বই পড়ার সামর্থ্য না থাকলেও বইমেলায় এসে মনের আলো দিয়ে বই পড়ছেন তারা। অমর একুশে গ্রন্থমেলার চারদিকে যখন নতুন বইয়ের ঘ্রাণ, তখন তারাও ব্রেইল পদ্ধতির বই পেয়ে খুশি। দেখে পড়তে না পারলেও তারা হাতের আঙুলের স্পর্শে পড়ছেন ব্রেইল প্রকাশিত বইগুলো। ইমদাদুল হক মিলনের লেখা ‘ভালোবাসার সুখ দুঃখ’ বইটি পড়ছিলেন দৃষ্টিজয়ী শিক্ষার্থী আমরিন নাহার রিমি। তিনি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ইসলামের ইতিহাস ও সংস্কৃতি বিভাগের অনার্স ২য় বর্ষে পড়ছেন। তিনি বলেন, ‘আমি ২০১১ সাল থেকে বইমেলায় স্পর্শ ব্রেইল প্রকাশনার স্টলে এসে বই পড়ি। আমরা তো সব ধরনের লেখকের বই নিজেরা পড়তে পারি না। অন্যের মুখে বিভিন্ন লেখকের গল্প শুনি। নিজে নিজে বই পড়ার মজাই তো আলাদা! সব লেখকের বই তো ব্রেইল আকারে প্রকাশ পায় না। তাই ‘স্পর্শ ব্রেইল প্রকাশনা’ যেসব বই ব্রেইল আকারে প্রকাশ করে সেগুলোই...

লক্ষ্য পূরণ না হওয়ায় কর্মীদের অদ্ভুত শাস্তি

February 06, 2019

নিউজ ডেস্ক :প্রতিটি প্রতিষ্ঠানই একটি নির্দিষ্ট লক্ষ্য মেনে কাজ করে। এ জন্য কর্মীদেরও লক্ষ্য নির্ধারণ করে দেয়া হয়। সেগুলো পূরণ না হলে কর্মীদের বিভিন্ন দণ্ডের মুখোমুখি হওয়ার নজিরও দেখা যায়। তবে চীনের একটি পণ্যপ্রস্তুতকারী প্রতিষ্ঠান লক্ষ্য পূরণ না হওয়ায় তাদের ছয় কর্মীকে অদ্ভুত সাজা দিয়েছে। এই ঘটনা ব্যাপক সমালোচিত হচ্ছে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে। চীনের সানডং প্রদেশের এই প্রতিষ্ঠানটি বিক্রয় বিভাগের ছয় কর্মীকে একটি লক্ষ্য বেঁধে দিয়েছিল। নির্ধারিত সময়ের মধ্যে ওই কর্মীরা লক্ষ্য পূরণে ব্যর্থ হয়। ফলে শাস্তিস্বরূপ তাদের সবাইকে রাস্তায় হামাগুড়ি দিয়ে চলতে বলা হয়। চাকরি হারানোর ভয়ে ব্যস্ত রাস্তায় নেমে পড়ে কর্মীরা। হামাগুড়ি দিয়ে চলন্ত গাড়ির সাথে তারাও চলতে থাকে। এই দৃশ্য পর্যবেক্ষণ করতে থাকে প্রতিষ্ঠানটির আরেক কর্মকর্তা। কিছুক্ষণের মধ্যে সামাজিক...

বুদ্ধি দিয়ে দুই বোনের ভাগ্য জয়

February 03, 2019

নিউজ ডেস্ক: ভারতের উত্তর প্রদেশের বাসিন্দা জয়তী কুমারী ও নেহা কুমারী। এই দুই কিশোরী এখন সকলের প্রশংসায় ভাসছে, কারণ তারা দুইবোন মিলে যা করেছে তা এক কথায় বিরল। জয়তী ও নেহার বাবা ছিলেন পেশায় নাপিত। দুইবোন, মা এবং বাবা মিলে টানাপোড়েনের সংসার। হঠাৎ করেই তাদের বাবা পক্ষাঘাতগ্রস্ত হয়ে পড়ে। জয়তীর বয়স তখন মাত্র তেরো, অন্যদিকে নেহার বয়স এগারো। পরিবারের একমাত্র উপার্জনক্ষম ব্যক্তি অসুস্থ হয়ে পড়ায় অকুল পাথারে পড়ে পরিবার। বাবার চিকিৎসায় তাদের সামান্য সঞ্চয়ও শেষ হয়ে যায়। সবকিছু হারিয়ে যখন দিশেহারা তাদের মা, তখন এগিয়ে আসে জয়তী ও নেহা। বাবার বন্ধ সেলুনটি পুনরায় চালু করে দুইবোন। কিন্তু মেয়েরা কাটবে ছেলেদের চুল-দাড়ি? অনেকেই ভ্রু কুঁচকে এই প্রশ্ন তোলে। অনেকে তাদের দোকানে আসা বন্ধ করে দেয়। একদিকে বাবার চিকিৎসার অর্থ, অন্যদিকে পরিবারের রুটি-রুজি সবকিছু মিলিয়ে এক চমকপ্রদ...

সন্তান না হওয়ায় একঘরে, ‘প্রতিশোধ’ নিয়ে পেলেন পদ্মশ্রী

January 28, 2019

আন্তর্জাতিক ডেস্ক :বিবাহিত জীবনের ২৫ বছর পরেও কোনো সন্তান হয়নি। এজন্য সমাজ তাকে করেছিল একঘরে। গর্ভধারণ করতে না পারলে নাকি নারী পূর্ণতা পান না-এ ধারণা থেকে সমাজের কেউ তার সঙ্গে মিশত না। এ থেকে তার মনে জন্ম নিল ক্ষোভ। মনে মনে তিনি সমাজের প্রতি প্রতিশোধ নিতে চাইলেন। আর ক্ষোভ থেকে তিনি যা করলেন তাকে এনে দিল ভারতের চতুর্থ সর্বোচ্চ অসামরিক সম্মাননা পদ্মশ্রী। আনন্দবাজারের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, কর্নাটকের গুব্বি তালুকের বাসিন্দা বেকাল চিক্কাইয়ার সঙ্গে থিম্মাক্কার বিয়ে হয়েছিল। সন্তান না হওয়ায় স্বামীর সঙ্গে অনন্য এক সিদ্ধান্ত নেন তিনি। ঠিক করেন, গাছ লাগাবেন। আর তাদেরই বড় করবেন সন্তানস্নেহে। থিম্মাক্কার কোনো প্রাতিষ্ঠানিক ডিগ্রি নেই। গ্রামের আর পাঁচজন দরিদ্র ভারতীয় নারীর মতোই শ্রমিক হিসেবে কাজ করে রুটিরুজি চালানো এক নারী। ভূমিহীন দিনমজুর এই দম্পতি সমাজেও...

এক মাসে বাড়ির বিদ্যুৎ বিল ২৩ কোটি!

January 23, 2019

আন্তর্জাতিক ডেস্ক :ভারতের উত্তর প্রদেশে এক ব্যক্তি বাড়ির বিদ্যুৎ বিল হাতে পেয়ে মাথায় যেন বাজ পড়েছে। কেননা তার বাড়ির বৈদ্যুতিক সংযোগটি মাত্র দুই কিলোওয়াটের। আর এ বাবদ বিল এসেছে ২৩ কোটি রুপি! ভারতীয় সংবাদমাধ্যম এনডিটিভির এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়েছে। এনডিটিভির প্রতিবেদনে জানানো হয়েছে, দুই কিলোওয়াটের ওই বৈদ্যুতিক সংযোগ তার বাড়ির জন্য যথেষ্ট। তাছাড়া তার বাড়ির মিটারে দেখাচ্ছে এ মাসে মোট বিদ্যুৎ খরচ হয়েছে মাত্র ১৭৮ ইউনিট। তিনি বিশাল অংকের এই বিল নিয়ে বেশ বিপদে পড়েছেন। ওই ব্যক্তির নাম আবদুল বশিত। তিনি উত্তর প্রদেশের কান্নাউজ জেলার বাসিন্দা। বিশাল অংকের এই বিদ্যুৎ বিল হাতে আসার পর থেকে তিনি ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষ থেকে সাধারণ কর্মচারীদের কাছে পর্যন্ত গেছেন। কিন্তু কেউই তার সমস্যার সমাধান করতে পারেনি। তার বিদ্যুৎ বিলটির প্রকৃত পরিমাণ ২৩ কোটি ৬৭ লাখ...

কলমাকান্দায় মানু মজুমদার এমপি’র মত বিনিময় সভা

January 15, 2019

কলমাকান্দা (নেত্রকোনা) সংবাদদাতা:কলমাকান্দা উপজেলা প্রশাসনের উদ্যোগে গত সোমবার প্রশাসন, জনপ্রতিনিধি, রাজনীতিক সুধী এবং গণমাধ্যম কর্মীদের সঙ্গে মত বিনিময় করেন নেত্রকোনা-১ আসনের সংসদ সদস্য মানু মজুমদার। কলমাকান্দা মাল্টি পারপাস অডিটরিয়ামে ইউএনও মো. জাকির হোসেনের সভাপতিত্বে ও ভেটেরিনারি সার্জন ডা. মো. ফারুক হোসেন এর স ালনায় মত বিনিময় সভায় বক্তব্য রাখেন প্রধান অতিথি মানু মজুমদার এমপি, জেলা আওয়ামী লীগ সহ-সভাপতি আব্দুল খালেক তালুকদার, উপজেলা চেয়ারম্যান শাহ্ মো. ফখরুল ইসলাম ফিরোজ, উপজেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা চন্দন বিশ্বাস ও আনোয়ার হোসেন আজাদ, মাজহারুল করিম, ইদ্রিস আলী তালুকদার, মিনারা ইসলাম, সুলতান গিয়াস উদ্দিন ও রাজ্জাক আহম্মেদ রাজু প্রমুখ। মত বিনিময় সভায় মানু মজুমদার এমপি বলেন জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দেশ এখন এগিয়ে যাচ্ছে মধ্যম আয়ের...

চুরি করতে এসে ৩ ঘণ্টা দরজার বেল চাটল চোর

January 11, 2019

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: চুরি করতে এসেছিল চোর। ঘরের সবাই তখন গভীর ঘুমে। কিন্তু দরজা না ভেঙে, এমনকি চুরিও না করে দরজার পাশের কলিং বেল ঘণ্টার পর ঘণ্টা চেটে চলেছে চোর! ক্যালিফোর্নিয়ার পুলিশ এমনই এক ব্যক্তির সন্ধানে ব্যস্ত যিনি অদ্ভুত এই আচরণ করেছেন। গত শনিবার সকালে ক্যালিফোর্নিয়ার স্যালিনাসে ডানগান পরিবারের বাড়ির দরজায় ঘণ্টা খানেক ধরে রবার্টো ড্যানিয়েল অ্যারও নামের ওই চোরের কলিং বেল চাটার ফুটেজ ধরা পড়েছে বলে জানিয়েছে স্কাই নিউজ। বাড়ির মালিক সিলভিয়া ডানগান বলেন, ঘটনার সময় তিনি বাড়িতে ছিলেন না, কিন্তু তার সন্তান ছিল। সদর দরজায় কিছু একটা হচ্ছে এই নোটিফিকেশন পেয়ে তারা ক্যামেরার ফুটেজ লক্ষ করেন। তখনই তারা তাজ্জব হয়ে দেখেন রবার্টো অ্যারও ক্যামেরার দিকে তাকিয়ে কলিং বেল চাটছেন। সিলভিয়া বলেন, ভোর পাঁচটায় আমি বেরিয়ে যাই, আমার ছেলে সকাল ৬ টার আগে ওঠে...