| |

Ad

ভিকারুননিসার অধ্যক্ষ নিয়োগ প্রক্রিয়া বাতিল

আপডেটঃ 5:23 am | July 05, 2019

অবশেষে রাজধানীর ভিকারুননিসা নূন স্কুল অ্যান্ড কলেজের অধ্যক্ষ নিয়োগ প্রক্রিয়া বাতিল করে দিয়েছে শিক্ষা মন্ত্রণালয়। লিখিত পরীক্ষায় অনিয়মের অভিযোগ ওঠায় স্থগিত থাকা ওই নিয়োগ প্রক্রিয়া বাতিল করে আজ বৃহস্পতিবার (৪ জুলাই) ঢাকা শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যানকে চিঠি পাঠায় মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা বিভাগ।

আদেশে বলা হয়, গত ২৬ এপ্রিল অনুষ্ঠিত ভিকারুননিসার অধ্যক্ষ নিয়োগ প্রক্রিয়া ‘যথাযথ’ না হওয়ায় ওই নিয়োগ প্রক্রিয়া বাতিল করে ‘অধিকতর বিশ্বাসযোগ্য ও বিতর্কমূলক’ করে অধ্যক্ষ নিয়োগের লক্ষ্যে পরিচালনা পর্ষদকে প্রয়োজনীয় নির্দেশনার অনুরোধ করা হলো।

আদেশে বলা হয়, এই প্রতিষ্ঠানে অধ্যক্ষ নিয়োগের জন্য ইতোপূর্বে গঠিত পাঁচ সদস্যের নিয়োগ কমিটির সদস্যদের ভবিষ্যতে এ প্রতিষ্ঠানের মতো কোনো স্বনামধন্য শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে অধ্যক্ষ নিয়োগ কমিটিতে সদস্য হিসেবে অন্তর্ভুক্ত না করার অনুরোধ করা হলো।

লিখিত পরীক্ষায় অনিয়মের অভিযোগে ওঠায় গত ২৯ এপ্রিল ভিকারুননিসার অধ্যক্ষ নিয়োগের প্রক্রিয়া স্থগিত করে অভিযোগ তদন্ত করতে মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদপ্তরকে নির্দেশ দেয় মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা বিভাগ।

ভিকারুননিসায় অধ্যক্ষ নিয়োগে গত ২৬ এপ্রিল লিখিত পরীক্ষা নেওয়া হয়, তাতে ১৫ প্রার্থীর মধ্যে ১৩ জন অংশ নেন বলে কলেজ সূত্রে জানা যায়।

পরীক্ষায় অনিয়মের অভিযোগ তুলে একজন প্রার্থী ও একজন অভিভাবক শিক্ষা মন্ত্রণালয়ে লিখিত অভিযোগ করেছিলেন। এরই পরিপ্রেক্ষিতে প্রথমে নিয়োগ প্রক্রিয়া স্থগিত করার পর তা বাতিল করা হলো।

স্কুলটির নবম শ্রেণির ছাত্রী অরিত্রী অধিকারীর আত্মহত্যার ঘটনার জের ধরে তৎকালীন ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ নাজনীন ফেরদৌসসহ তিন শিক্ষককে সরিয়ে দেওয়া হয়। এরপর থেকে ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষের দায়িত্ব চালিয়ে আসছেন কলেজ শাখার সহকারী অধ্যাপক হাসিনা বেগম।

অরিত্রীর বাবার করা আত্মহত্যায় প্ররোচণার মামলায় গত ২৮ মার্চ পুলিশ নাজনীন ফেরদৌস ও প্রভাতী শাখার প্রধান শিক্ষক জিনাত আরার বিরুদ্ধে অভিযোগপত্র দেয়। মামলার এজাহারের আরেক আসামি অরিত্রীর শ্রেণি শিক্ষক হাসনা হেনাকে এ মামলার অভিযোগ থেকে অব্যাহতি দেওয়ার আবেদন করা হয়।